ডেঙ্গি মোকাবিলায় উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সঙ্গে আজ জরুরি বৈঠকে বসছে শিলিগুড়ি পুরনিগম। ডেঙ্গি আক্রান্ত চিকিৎসক

শিলিগুড়ি। বর্ষা শুরুতেই উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ডেঙ্গি্র প্রাদুর্ভাব। মেডিকেলের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে জঞ্জাল সাফাই নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসছে শিলিগুড়ি পুরোনিগম।মেডিকেল চত্ত্বরের পরিচ্ছন্নতা নিয়ে বাড়তি পদক্ষেপ গ্রহণ করে সাফাইয়ের কাজে এবারে শিলিগুড়ি পুরনিগম সরাসরি হস্তক্ষেপ করতে চলেছে। একইসঙ্গে বেহাল হয়ে পড়া নিকাশি ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

 

রাজ্যের সর্ববৃহৎ উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের নিকাশি ব্যবস্থাকে আধুনিক ভাবে সাজিয়ে তুলতে বিশেষজ্ঞ সংস্থাকে দিয়ে সার্ভের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এক মহিলা চিকিৎসক পড়ুয়া ডেঙ্গি আক্রান্ত  হয়ে পড়েছে। হোস্টেলের আরও এক চিকিৎসকের মধ্যেও ডেঙ্গির উপসর্গ রয়েছে। তারা হোস্টেলেই বসবাস করে। হোস্টেল চত্বরের গজিয়ে ওঠা আগাছা ও জঞ্জালের বাড়বাড়ন্তই ডেঙ্গি প্রাদুর্ভাবের কারণ হিসেবে সামনে উঠে আসছে। আর এরপরই রবিবার উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের রুগী কল্যাণ সমতির বৈঠকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকা সহ চিকিৎসকদের কোয়ার্টার ও পড়ুয়াদের হোস্টেল চত্ত্বর জুড়ে জঞ্জাল সাফাইয়ের কাজে বাড়তি তৎপরতা আরোপের বিষয়টিতে আলোকপাত করা হয়। রবিবার ছুটির দিনে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রুগী কল্যান সমিতির বৈঠক চলে। রুগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান গৌতম দেব, জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক তুলসী প্রামানিক, মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ ইন্দ্রজিৎ সাহা, সুপার সঞ্জয় মল্লিক এবং ডিন সন্দ্বীপ সেনগুপ্ত ও অন্যান্য বিভাগীয় প্রধান চিকিৎসক ও মেডিকেল ফাঁড়ির ওসির উপস্থিতিতে চলে বৈঠক। বৈঠকে একাধিক পরিকল্পনা গৃহীত হয়। হাসপাতাল চত্ত্বরের পরিচ্ছন্নতা ও নিরাপত্তার বিষয়টির ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব আরোপ করা হয়। বৈঠকের পর উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডিন সন্দ্বীপ সেনগুপ্ত বলেন মেডিকেলের এক চিকিৎসক পড়ুয়া ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। এদিকে আরও চিকিৎসক পড়ুয়াদের মধ্যে জ্বর ও অন্যান্য উপসর্গ রয়েছে। সে বিষয়ে তিনি বলেন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল চত্ত্বরে সাফাইয়ের ওপর বাড়তি জোর দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে উত্তরবঙ্গ
মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিজস্ব সাফাই কর্মী রয়েছে। তবে বিরাট ক্যাম্পাস চত্ত্বরের পরিচ্ছন্নতার জন্য বাইরে থেকে কিছু কর্মী নিয়োগ ও এসজেডিয়ে বিষয়টি দেখছে।শিলিগুড়ি পুরনিগম মেডিকেলের সাফাইয়ের বিষয়ে আংশিক দায়িত্ব গ্রহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মেডিকেল চত্ত্বর সহ চিকিৎসক পড়ুয়াদের নয়টি হোস্টেল এলাকায় সাফাইয়ের কাজ বাড়ানো হবে। ব্লিচিং পাউডার, মশা মারার স্প্রেয়িঙের ওপর জোড় দিচ্ছে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। এই হোস্টেলগুলিিতেই প্রায় ১০০০-১২০০ চিকিৎসক পড়ুয়ারা রয়েছে।  ডিন বলেন ডেঙ্গি মোকাবিলাকে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। সার্বিকভাবে সাফাই এবং জ্বরের উপসর্গ দেখা দিলেই ডেঙ্গির পরীক্ষা করা হচ্ছে।

একইসঙ্গে প্রায় ৫৪বছরের পুরোনো উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের নিকাশি ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এদিনের রুগী কল্যাণ সমিতির বৈঠকে পূর্ত দপ্তরের সহযোগিতায় মেডিকেলের নিকাশি ব্যবস্থার জন্য পূর্ণাঙ্গ সার্ভের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া রুগী পরিসেবার মানোন্নয়ন ও নিরাপত্তারজনিত বিষয়ে একাধিক নতুন পদক্ষেপ গ্রহন করবে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। মেডিকেল রুগীদের খাদ্য সরবরাহের আধুনিক মডুলার মেকানাইজিড রসুইঘর ও আধুনিক পরিকাঠামো সম্পন্ন ধোপাখানা করার পরিকল্পনা রয়েছে। জানা গিয়েছে মেডিকেলে শয্যা সংখ্যা ৭৫০ হলেও নিত্যদিন আর্থিক ভাবে দূর্বল রুগী পরিজনেদের নিয়ে প্রায় ১৫০০ রুগীর খাবার প্রদান করা হয়। আধুনিক রসুইঘর হলে খুব কম সময়তে এই খাবার সরবরাহ করা সম্ভব হবে।
পরিশ্রুত পানীয় জল সর্বত্র পৌঁছতে ৫কোটি টাকার প্রকল্পের কাজ ত্বরান্বিত করতে পূর্ত দপ্তর ও পিএইচই-র সঙ্গে বৈঠক করবে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া সম্প্রতি মেডিকেলে এসির যন্ত্রাংশ সহ বেশ কিছু টুকিটাকি সামগ্রী চুরির ঘটনা ঘটে। দুজনকে গ্রেপ্তারও করেছে মেডিকেল ফাঁড়ির পুলিশ।এ ধরনের ঘটনা রুখতে বর্তমানে থাকা ১০০ টি সিসি ক্যামেরার পাশাপাশি মেডিকেল চত্বর জুড়ে আরও কিছু সিসি ক্যামেরা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

 

You cannot copy content of this page