জোড়পূর্বক ভাজপা সাংসদ জয়ন্ত রায়ের দল বল নিয়ে ঢোকার চেষ্টা। সেন্ট্রাল বাহিনীর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে গুন্ডামি অভিযোগ ভাজপা সাংসদের জয়ন্ত রায়ের বিরুদ্ধে।

শিলিগুড়ি। জোড়পূর্বক ভাজপা সাংসদ জয়ন্ত রায়ের দল বল নিয়ে ঢোকার চেষ্টা। সেন্ট্রাল বাহিনীর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে গুন্ডামি অভিযোগ ভাজপা সাংসদের জয়ন্ত রায়ের বিরুদ্ধে। ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পূর্ব ধনতলার ১৯এর ৩০৪,পূর্ব ধনতলা বুথে আচমকা ১১.৪০নাগাদ এসে পৌঁছান সাংসদ ডাঃ জয়ন্ত রায়। টাটা সুমো থেকে দলবল নিয়ে নেমে বুথের দিকে যেতে শুরু করেন। তৃনমূল বুথ সভাপতি নওশাদ হুসেনের অভিযোগ বুথ মুখী হাটা দেন চার পাঁচজন ছেলে কে সঙ্গে নিয়ে তিনি। কেন্দ্রীয় বাহিনী যেখানে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষের সাথে তার পরিবারের সদস্যদের যেতে দিচ্ছেন না। চমক ধমক দিয়ে চলছে। তৃনমূলের বুথ কর্মীদের ক্রমাগত চোখ রাঙানো আর শাসানি দিয়ে চলেছে সেখানে সাংসদ দলবল নিয়ে সোজা বুথের ভেতর ঢুকে পড়ছেন। তা বাধা দিতে এলেই পুলিশ কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে জেলে পুড়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন। তৃনমূল বুথের কর্মীদের অভিযোগ আমরা সাংসদকে কোনদিন দেখিনি এলাকায়। তাকে আমরা চিনি পর্যন্ত না। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে ঘুরতে ভোট প্রভাবিত করতে এসেছিলেন। নিযুক্ত সমস্ত কেন্দ্রীয় বাহিনীর নম্বরে ফোন করে নির্দেশ দিচ্ছেন বিদায়ী সাংসদ। আমাদের ৪০০মিটার ধারেকাছে ঘেঁষতে দেওয়া হচ্ছে না। আর উনি দলবল নিয়ে বুথে ঢুকে পড়েছেন বলেই অভিযোগ।

You cannot copy content of this page