নির্বাচন বুথের নির্দিষ্ট এলাকার ১৪৪ধারা উপেক্ষা করে দলবল নিয়ে জোড় পূর্বক অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি বিধায়ীকা শিখা চ্যাটার্জির।

 

শিলিগুড়ি। নির্বাচন বুথের নির্দিষ্ট এলাকার ১৪৪ধারা উপেক্ষা করে দলবল নিয়ে জোড় পূর্বক অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি বিধায়ীকা শিখা চ্যাটার্জির। পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক ধস্তাধস্তি বিজেপি কর্মীদের। জলপাইগুড়ি লোকসভা কেন্দ্রের অধীনে তাপরাম ফুলবাড়ী বিধানসভা ক্ষেত্রে বিজেপি কর্মীরা।ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি ৩০০ ও ৩০১নাম্বার বুথে নির্বাচনি ২০০মিটারের মধ্যে ঢুকে পড়েন বিজেপি বিধায়িকা।এরপর তৃনমূল কর্মীরা পুলিশ বিধায়িকার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে নির্বাচন নির্দেশিকা বিষয়টি উল্লেখ করে। পুলিশ বাধা দেয়। এরপর বিজেপি বিধায়িকার নির্দেশে কর্মীরা গুন্ডামিতে নেমে পড়ে। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি পুলিশের উপর আক্রমণ চড়া ও রীতিমতো রণক্ষেত্রের রূপ নেয়। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বিজেপি বিধায়ীকার বিরুদ্ধে পুলিশ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণে তৎপর হলে বিজেপি কর্মীরা রীতিমতো হামলে পড়ে পুলিশের ওপর। বিজেপি গাড়ি নিয়ে আইন লঙ্ঘন করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। জোরপূর্বক পুলিশকে মারধোর করে বিধায়িকার গাড়ি বের করার চেষ্টা করে। পুলিশ গাড়ি আটকে রাস্তায় বসে পড়ে। কোন রকম তোয়াক্কা না করে পুলিশদের উপর চড়া হয়ে আক্রমণ শানায় বিজেপি কর্মী। কর্তব্যরত পুলিশকর্মীদের মারধোর কতে গাড়ি বের করে দেয় বিজেপি কর্মীরা। পুলিশ বিধায়িকার গাড়ির পিছু নেয়। এলাকা ছেড়ে পলাতক বিধায়িকা। বিধায়িকার গাড়ির পিছু নেয় পুলিশ। এই বিষয়ে শিলিগুড়ি মেয়র তথা ডাকনাম ফুলবাড়ী কেন্দ্রের প্রাক্তন বিধায়ক গৌতম দেব বলেন- এ ধরনের জিনিস করা অনৈতিক অন্যায় আমাদের এখানে এরকম হয়না। এ মহিলা যা করছে তাতে পরিষ্কার ডাব গ্রাম ফুলবাড়ীতে বহু ভোটে হারবে বিজেপি। ভোটে হারবে বিজেপি। এটা নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের হবে। কল তলার ঝগড়া আমি করতে পারবো না। এটা তো রাজ্য নির্বাচন কমিশন নয় কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন।

You cannot copy content of this page