মন্ত্রী পার্থর ঘাঁটি উত্তরেও। শুধু অর্পিতা-মোনালিসা নয়!
শিলিগুড়ি শহরের অলিন্দে বসবাস পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর আরও এক ঘনিষ্ঠ পেশায় ডেকোরেটার্স ব্যবসায়ীর!

কলকাতার খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয় ছেড়ে ২০১৪সালে বিশেষ সুযোগ সুবিধা গ্রহন করে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তখন তিনি রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর বিশেষ ঘনিষ্ঠতা বাড়ে ক্রমশ।
ওই অধ্যাপকের মদতেই একাধিক বিশেষ সুযোগ সুবিধা নিয়ে উত্তরবঙ্গ বিশ্ব বিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন মন্ত্রী। তার পিএইচডি পেপারে অধ্যাপকই গাইডের ভূমিকা পালন করেছিলেন। পরবর্তীতে শিশুশ্রম নিয়ে অধ্যাপকের নামে একসঙ্গে পুস্তকও প্রকাশ করেছেন মন্ত্রী। এখানেই তার ক্ষমতার বিস্তার শেষ নয়, বরং সবে শুরু বলা যেতে পারে-

🔻ওই অধ্যাপকের মারফৎ যোগাযোগ করতে হতো পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। তদানীন্তন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অধ্যাপকের হাত ধরে অনৈতিকভাবে কলেজে চাকুরীরত একাধিক অধ্যাপকের সরাসরি পদোন্নতি ঘটে বিশ্ববিদ্যালয়ে।

মন্ত্রী পার্থ বড়সড় ঘনিষ্ঠমহল রয়েছে শিলিগুড়িতে।পার্থ ঘনিষ্ঠ হিসেবে চাকুরীর নামে মোটা টাকার লেনদেনের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন তারা। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ থেকে সাদা খাতার বিনিময়ে এসএসসিতে শিক্ষকের চাকুরী এমন বিস্ময়কর বহুকিছুই হতো শহরের পার্থ সারথিদের দৌলতে।

কে এই ঘনিষ্ঠ?

🔻 শিলিগুড়ি শহরে কলেজ পাড়ার অলিন্দে বসবাস পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ এর। রুমাল থেকে বেড়াল বেড়িয়ে আসার মতো একাধিক কাজের বাদশা তিনি! উত্তরের এসএসসি দূর্নীতি থেকে বদলি, অনৈতিক পদদোন্নতির মতো একাধিক কার্যসিদ্ধি হতো তার মারফৎ মোটা অংকের লেনদেনের মাধ্যমে। পেশায় ডেকোরেটার্স ব্যবসায়ী এই ব্যক্তি শিলিগুড়ির আরো এক প্রাক্তন মন্ত্রীরও অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারের পর থেকেই যাবতীয় লেনদেনের বিস্তারিত তথ্যের তালিকা তৈরি করছে ইডি। উত্তরবঙ্গ সহ শিলিগুড়িতে ধৃত মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠমহলের উপর নজর রয়েছে ইডির!

You cannot copy content of this page