🔴জি২০ঘিরে দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক।জি২০প্রতিনিধিদের স্বাগত জানাতে শিলিগুড়িতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও ব্যাঘাত ঘটালো রাম নবমীর মিছিল

 

 

শিলিগুড়ি। জি২০ঘিরে দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক। জি২০প্রতিনিধিদের স্বাগত জানাতে শিলিগুড়িতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও ব্যাঘাত ঘটালো রাম নবমীর মিছিল। হাতে আর সময় নেই। রাত পেরোলেই শহরে পা রাখবেন বিশ্বের কুড়িটি দেশের প্রতিনিধিরা। তাই আগাম সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয় শিলিগুড়ি শহরজুড়ে। সাজিয়ে তোলা হয় শহর। শিলিগুড়ি শহরের অভ্যন্তরে ধর্মীয় স্থান ভিত্তিক পর্যটন কে মুখ করে ইসকন মন্দির কে জি কুড়ি প্রতিনিধি দলের পর্যবেক্ষণের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। সেমতো শিলিগুড়ি পুরনিগমের তরফে আগেভাগেই একদিকে যেমন নিউ চামটা থেকে দার্জিলিং মোড় পর্যন্ত এলাকা, সৌন্দর্যায়ন ও নির্মল পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ে তোলা হয়। অন্যদিকে একইভাবে বিদেশি প্রতিনিধিদের অভ্যর্থনা জানাতে ভক্তিনগর থানা চেকপোস্ট সংলগ্ন এলাকা থেকে ইসকন মন্দির রোড পর্যন্ত রাস্তাকে সাফ সাফাই করে নির্মল পরিচ্ছন্ন এবং সাজিয়ে তোলা হয়। তবে রাম নবমী মিছিল থেকে প্লাস্টিক গ্লাস, প্যাকেট, থেকে শুরু করে বিশৃঙ্খল ভাবে বেপরোয়াবাজেদের দাপট চলায় এলাকার রাস্তা ময়লা আবর্জনায় ঢেকে যায়। শিলিগুড়ি পুরনিগমের আবর্জনা অপসারণ বিভাগের মেয়র পারিষদ মানিক দে বলেন হাতে আর বেশী সময় নেই। ১লা এপ্রিল শহরে ঢুকে যাবে বিশ্বের প্রতিনিধিরা। বিদেশের প্রতিনিধিদের সামনে শহরকে নির্মল পরিবেশ বান্ধব ও ঝা চকচকে হিসেবে তুলে ধরাই আমাদের লক্ষ্য। সেজন্য শিলিগুড়ি নিউ চামটা থেকে দার্জিলিংমোড়, চেক পোস্ট থেকে ইসকন মন্দির রোড, মন্দির সংলগ্ন এলাকা বুধবারই সাফাই করে ফুল ও পাতাবাহার গাছের সারি সারি টব দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাম নবমী ঘিরে প্রচুর প্লাস্টিকের বোতল, গ্লাস আবর্জনা ফেলানো হয়। যথেচ্ছ ভাবে এলাকায় আবর্জনা ফেলানো হয়েছে। সৌন্দ্যযায়নের কাজও কিছুটা নষ্ট হয়েছে।   পুনরায় তা কর্মী নামিয়ে করতে হবে। একটা দিনের সাফ সাফাইয়ের কাজ পুরোটাই ধূলিসাৎ হলো বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেন তিনি। এদিকে উল্লেখযোগ্য ভাবে এদিন দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক করে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন জি ২০-র কোঅর্ডিনেটর হর্ষবর্ধন সিঙলা সহ কেন্দ্র ও রাজ্যের প্রসাসনিক উচ্চ আধিকারিকের উপস্থিত ছিলেন। জি ২০-র কোঅর্ডিনেটর হর্ষবর্ধন সিঙলা বলেন ১লা এপ্রিল শিলিগুড়িতে এসে পৌঁছবে বিদেশি জি২০র প্রতিনিধি দল। মূলত কোভিডের পরবর্তি সময়কালে দেশের পর্যটন প্রসার ও উন্নয়নকে লক্ষ্য করে এই সফর তাদের। দেশের উত্তর পূর্ব অংশের পর্যটনের সঙ্গে সরাসরি ভাবে যুক্ত ছোট বড় পর্যটন ব্যবসায়ী, এবং এই অঞ্চলের পর্যটনকে ঘিরে সম্ভাবনা পরিদর্শন করে তার ভবিষ্যত প্রসার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন তারা। মূলত এখানে দার্জিলিং ও পাহাড়ি অংশে টি ট্যুরিজম, এডভেঞ্চার ট্যুরিজম, দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়েকে ঘিরে বিপুল পর্যটন সম্ভাবনা এই টিমের সামনে তুলে ধরা হবে। আগামীতে এই বৈঠকে থাকবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও পর্যটন সচিবেরা। কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের সচিব শ্রী অরবিন্দ সিংহ জানান এই বিদেশি প্রতিনিধিদের দল স্থানীয় পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত হস্তশিল্প লোকসংস্কৃতির সঙ্গে সরাসরি পরিচিত হবেন।

জি২০ঘিরে দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক।জি২০প্রতিনিধিদের স্বাগত জানাতে শিলিগুড়িতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও ব্যাঘাত ঘটালো রাম নবমীর মিছিল

শিলিগুড়ি। জি২০ঘিরে দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক। জি২০প্রতিনিধিদের স্বাগত জানাতে শিলিগুড়িতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও ব্যাঘাত ঘটালো রাম নবমীর মিছিল। হাতে আর সময় নেই। রাত পেরোলেই শহরে পা রাখবেন বিশ্বের কুড়িটি দেশের প্রতিনিধিরা। তাই আগাম সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয় শিলিগুড়ি শহরজুড়ে। সাজিয়ে তোলা হয় শহর। শিলিগুড়ি শহরের অভ্যন্তরে ধর্মীয় স্থান ভিত্তিক পর্যটন কে মুখ করে ইসকন মন্দির কে জি কুড়ি প্রতিনিধি দলের পর্যবেক্ষণের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। সেমতো শিলিগুড়ি পুরনিগমের তরফে আগেভাগেই একদিকে যেমন নিউ চামটা থেকে দার্জিলিং মোড় পর্যন্ত এলাকা, সৌন্দর্যায়ন ও নির্মল পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ে তোলা হয়। অন্যদিকে একইভাবে বিদেশি প্রতিনিধিদের অভ্যর্থনা জানাতে ভক্তিনগর থানা চেকপোস্ট সংলগ্ন এলাকা থেকে ইসকন মন্দির রোড পর্যন্ত রাস্তাকে সাফ সাফাই করে নির্মল পরিচ্ছন্ন এবং সাজিয়ে তোলা হয়। তবে রাম নবমী মিছিল থেকে প্লাস্টিক গ্লাস, প্যাকেট, থেকে শুরু করে বিশৃঙ্খল ভাবে বেপরোয়াবাজেদের দাপট চলায় এলাকার রাস্তা ময়লা আবর্জনায় ঢেকে যায়। শিলিগুড়ি পুরনিগমের আবর্জনা অপসারণ বিভাগের মেয়র পারিষদ মানিক দে বলেন হাতে আর বেশী সময় নেই। ১লা এপ্রিল শহরে ঢুকে যাবে বিশ্বের প্রতিনিধিরা। বিদেশের প্রতিনিধিদের সামনে শহরকে নির্মল পরিবেশ বান্ধব ও ঝা চকচকে হিসেবে তুলে ধরাই আমাদের লক্ষ্য। সেজন্য শিলিগুড়ি নিউ চামটা থেকে দার্জিলিংমোড়, চেক পোস্ট থেকে ইসকন মন্দির রোড, মন্দির সংলগ্ন এলাকা বুধবারই সাফাই করে ফুল ও পাতাবাহার গাছের সারি সারি টব দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাম নবমী ঘিরে প্রচুর প্লাস্টিকের বোতল, গ্লাস আবর্জনা ফেলানো হয়। যথেচ্ছ ভাবে এলাকায় আবর্জনা ফেলানো হয়েছে। সৌন্দ্যযায়নের কাজও কিছুটা নষ্ট হয়েছে। পুনরায় তা কর্মী নামিয়ে করতে হবে। একটা দিনের সাফ সাফাইয়ের কাজ পুরোটাই ধূলিসাৎ হলো বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেন তিনি। এদিকে উল্লেখযোগ্য ভাবে এদিন দার্জিলিংয়ে দ্বিতীয় পর্যটন কার্যকরি গ্রূপ বৈঠক করে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন জি ২০-র কোঅর্ডিনেটর হর্ষবর্ধন সিঙলা সহ কেন্দ্র ও রাজ্যের প্রসাসনিক উচ্চ আধিকারিকের উপস্থিত ছিলেন। জি ২০-র কোঅর্ডিনেটর হর্ষবর্ধন সিঙলা বলেন ১লা এপ্রিল শিলিগুড়িতে এসে পৌঁছবে বিদেশি জি২০র প্রতিনিধি দল। মূলত কোভিডের পরবর্তি সময়কালে দেশের পর্যটন প্রসার ও উন্নয়নকে লক্ষ্য করে এই সফর তাদের। দেশের উত্তর পূর্ব অংশের পর্যটনের সঙ্গে সরাসরি ভাবে যুক্ত ছোট বড় পর্যটন ব্যবসায়ী, এবং এই অঞ্চলের পর্যটনকে ঘিরে সম্ভাবনা পরিদর্শন করে তার ভবিষ্যত প্রসার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন তারা। মূলত এখানে দার্জিলিং ও পাহাড়ি অংশে টি ট্যুরিজম, এডভেঞ্চার ট্যুরিজম, দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়েকে ঘিরে বিপুল পর্যটন সম্ভাবনা এই টিমের সামনে তুলে ধরা হবে। আগামীতে এই বৈঠকে থাকবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও পর্যটন সচিবেরা। কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের সচিব শ্রী অরবিন্দ সিংহ জানান এই বিদেশি প্রতিনিধিদের দল স্থানীয় পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত হস্তশিল্প লোকসংস্কৃতির সঙ্গে সরাসরি পরিচিত হবেন।

You cannot copy content of this page