দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান।   উত্তরবঙ্গবাসীর জন্য স্বস্তির খবর শোনালো ওপার বাংলা। এখন শিলিগুড়ি থেকেই মিলবে বাংলাদেশের ভিসা। শিলিগুড়ি বুকে ফতফত করে উড়ছে বাংলাদেশের পতাকা!

 

সাত থেকে দশদিনের মধ্যে শিলিগুড়ি থেকেই মিলে যাবে ভিসা। আর এতেই পর্যটনমুখী আশার নয়া উড়ান ভরতে চলেছে এনজেপি-ঢাকা বন্ধুত্বপরায়ন রেল রুটও। কিছুদিনের মধ্যেই এনজেপি থেকে হলদিবাড়ির হয়ে এই রেল রুট ধরে যাত্রীবাহি ট্রেন ছোটার কথা রয়েছে। তা নিয়ে প্রস্তুতি চলছে দুই দেশের মধ্যে। যদিও বা ভারতীয় রেলের তরফে এখনও সময়সূচী চূড়ান্ত কিছুই জানানো হয়নি।

এদিকে এদেশের নাগরিকদের বাংলাদেশ হাইকমিশনের তরফে এই ভিসা দেওয়া হয়। এতদিন কলকাতা স্থিত ডেপুটি হাই কমিশনের বাংলাদেশ ভিসা আবেদন কেন্দ্র থেকেই এই ভিসা সংগ্রহ করতে হতো যাত্রীদের। বাংলাদেশ সরকারের হয়ে ডু ডিজিটাল গ্লোবাল এজেন্সির এই সংস্থাটি চুক্তি ভিত্তিতে এই কাজ করে থাকে। শিলিগুড়িতে বুধবার থেকে তাদের একটি শাখা খুলে ভিসা প্রদানের প্রক্রিয়া শুরু করা হয়।

শিলিগুড়ি সেবক রোড স্থিত এই আবেদন কেন্দ্র থেকে ভিসা পেতে ১২২৫টাকা খরচ পড়বে। কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয় এরমধ্যে ৮২৫টাকা প্রক্রিয়াকরণ ফি ও অতিরিক্তি আরও ৪০০ টাকা ক্যুরিয়ার চার্জ। এদিন থেকে পুনরায় একইসঙ্গে শিলিগুড়িতে চালু হয় বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ব্যাংক সোনালী ব্যাংকের শাখাটিও।

 

 

 

You cannot copy content of this page