🔴রেল দুর্ঘটনায় দুর্গত মানুষদের পাশে থাকতেই পাহাড় সফর স্থগিত করলেন মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

 

 

 

 

 

দার্জিলিং। বালাসোর রেল দুর্ঘটনায় দুর্গত মানুষদের কথা মাথায় রেখেই পাহাড় সফর স্থগিত করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এখনো প্রচুর মানুষ আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আবার অনেকেই এখন তাদের পরিবারের মানুষের দেহ খুঁজে পাচ্ছে না। আহতদের অনেকেই বাড়ি ফিরতে পারেনি। এই সমস্ত বিষয়টি নিজে তদারকি করতেই সোমবার দার্জিলিং সফর স্থগিত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আগামী ১০ জুন তিনি পাহাড়ে আসবেন বলেই প্রশাসনিক সূত্রে জানাগেছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী আসবে বলে প্রশাসনিক প্রস্তুতি থেকে পাহাড়ের মানুষ তৈরি ছিল। এমনকি দলীয় নেতা নেত্রীরা মুখ্যমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর জন্য পৌঁছে গিয়েছিলেন বাগডোগরা বিমানবন্দরে। দীর্ঘ ১১ মাস বাদে মুখ্যমন্ত্রী পাহাড়ে আসবেন বলে ঠিক ছিল। সেই কারণে পাহাড়ের উন্নয়ন ও বিনিয়োগের জন্য শিল্প সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল আগামী ৭ জুন। এছাড়াও ভানু ভবনে তিনজন স্বাধীনতা সংগ্রামী মহাত্মা গান্ধী নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোস ও দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাসের মূর্তির আবরণ উন্মোচন করার কথা ছিল। এর বাইরেও জি টি এর বোর্ডের দায়িত্ব নেওয়ার পরে সরকারিভাবে মুখ্যমন্ত্রী এখনো অনিত ঠাপাদের সাথে কোন বৈঠক করেননি। পাহাড়ের উন্নয়নের লক্ষ্যে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে অনিত থাপাদের সাথে বৈঠক করার কথা ছিল।  আপাতত এই সমস্ত পরিকল্পনা কয়েকদিনের জন্য স্থগিত রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আপাতত আগামী ১০ জুন পাহাড় সফরে আসার তারিখ ঠিক হয়েছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে।দার্জিলিং। বালাসোর রেল দুর্ঘটনায় দুর্গত মানুষদের কথা মাথায় রেখেই পাহাড় সফর স্থগিত করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এখনো প্রচুর মানুষ আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আবার অনেকেই এখন তাদের পরিবারের মানুষের দেহ খুঁজে পাচ্ছে না। সমস্ত বিষয়টি নিজে তদারকি করতেই সোমবার দার্জিলিং সফর স্থগিত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আগামী ১০ জুন তিনি পাহাড়ে আসবেন বলেই প্রশাসনিক সূত্রে জানাগেছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী আসবে বলে প্রশাসনিক প্রস্তুতি থেকে পাহাড়ের মানুষ তৈরি ছিল। এমনকি দলীয় নেতা নেত্রীরা মুখ্যমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর জন্য পৌঁছে গিয়েছিলেন বাগডোগরা বিমানবন্দরে। দীর্ঘ ১১ মাস বাদে মুখ্যমন্ত্রী পাহাড়ে আসবেন বলে ঠিক ছিল। সেই কারণে পাহাড়ের উন্নয়ন ও বিনিয়োগের জন্য শিল্প সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল আগামী ৭ জুন। এছাড়াও ভানু ভবনে তিনজন স্বাধীনতা সংগ্রামী মহাত্মা গান্ধী নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোস ও দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাসের মূর্তির আবরণ উন্মোচন করার কথা ছিল। এর বাইরেও জি টি এর বোর্ডের দায়িত্ব নেওয়ার পরে সরকারিভাবে মুখ্যমন্ত্রী এখনো অনিতা তাদের সাথে কোন বৈঠক করেননি। পাহাড়ের উন্নয়নের লক্ষ্যে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে অনিতা পদের সাথে বৈঠক করার কথা ছিল। আপাতত এই সমস্ত পরিকল্পনা কয়েকদিনের জন্য স্থগিত রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আপাতত আগামী ১০ জুন পাহাড় সফরে আসার তারিখ ঠিক হয়েছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে।

You cannot copy content of this page