ডিসেম্বরের উত্তরবঙ্গে শিল্প সম্মেলন থেকে ২৪হাজার কোটি টাকার লগ্নির সম্ভাবনার কথা! মালদার আম বাগানেও জমি মাফিয়াদের থাবা শিল্পপতিদের মুখে ভয়ংকর অভিযোগ শিল্প সম্মেলনে

শিলিগুড়ি। ডিসেম্বরের উত্তরবঙ্গে শিল্প সম্মেলন থেকে ২৪হাজার কোটি টাকার লগ্নির সম্ভাবনার কথা! মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফরের মাঝে বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ি কাওয়াখালি বিশ্ববাংলা শিল্পী হাটের শিল্প সম্মেলনে ফের একাধিক ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক থেকে শিল্পের সম্ভাবনার গুচ্ছের প্রস্তাব এলো। আগামী আর্থিক  বর্ষের মধ্যেই উত্তরবঙ্গে এই বিরাট অংকের বিনিয়োগে দক্ষিণ দিনাজপুরে ১০০ শয্যার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল থেকে জুট মিল এই তালিকায় রয়েছে কালিম্পংয়ের অর্কিড পার্ক, মিউজিয়াম, কয়েকশো কোটি টাকার দুটি ইথানল ইনড্রাস্ট্রিয়াল, জলপাইগুড়িতে ১০০কোটির ক্যানসার হাসপাতাল, ১৯০ কোটি টাকা দিয়ে কলকাতার ধাঁচে আধুনিক ২৫০শয্যার হাসপাতাল থেকে সোলার পাওয়ার পার্কের মতো বহুমুখী প্রকল্প প্রকল্পের ফিরিস্তি উঠে আসে। পাহাড় থেকে সমতলে শিক্ষা ক্ষেত্রেও কয়েকশো কোটির বিনিয়োগ হতে চলেছে। আগামী দু বছরের মধ্যেই কয়েকশো কোটির এই বড় শিল্প প্রকল্পগুলি চালুর লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে দেওয়া হয়েছে উদ্যোগপতিদের বলে জানান এদিন শিল্প সম্মেলনে মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদি। এদিন শিল্প সম্মেলনে রাজ্যের তরফে ছিলেন মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদি সহ রাজ্যের অন্যান্য সমস্ত শিল্পের সঙ্গে যুক্ত জরুরী দপ্তরের সচিবেরা। মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে রাজ্য ক্ষুদ্র ছোট ও মাঝারি শিল্প -উন্নয়ন দপ্তর ও টেক্সটাইল দপ্তরের তরফে উত্তরবঙ্গের ৮ জেলাকে নিয়ে এদিনের শিলিগুড়িতে শিল্প সম্মেলন আয়োজিত হয়। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প, কৃষি এবং খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, পর্যটন, টেক্সটাইলস-ইঞ্জিনিয়ারিং, রিয়েল এস্টেট, তথ্য-প্রযুক্তি এবং উচ্চশিক্ষার নজর আরোপ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে শিল্পের উপযোগী পরিবেশ রয়েছে রাজ্যে তা প্রমাণ করতে চান। রাজ্য মুখ্য সচিব শিল্প সম্মেলনের সূচনা লগ্নে জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বদা উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের নজর আরোপ করেন। রাজ্যের সঙ্গে তাই উত্তরে প্রতিটি ক্ষেত্রকে শিল্প মুখী করতে চান তিনি। মুখ্য সচিব প্রথমেই বাণিজ্যিক প্রসারের ক্ষেত্রে বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য রাজ্যের তরফে ১০০ একর জমি প্রদান করা হয়েছে বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষকে তা জানান। হাসিমারা বিমান বন্দর উন্নতিকরন ও কোচবিহার হাওয়াই আড্ডার রানওয়ের সম্প্রসারনে রাজ্য উদ্যোগী ভূমিকা নিয়ে ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে রাজ্যের যৌথভাবে সমীক্ষার সেরেছে।

 

প্রতিমাসে জেলাভিত্তিক ডিস্ট্রিক্ট লেভেল মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতি মাসে শিল্পের প্রসারে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে নিয়মিত ভাবে ডিএলএমসি বৈঠক করা হচ্ছে কিনা তার ওপর সরাসরি রাজ্যের সচিবালয় থেকে নজরদারি রাখতে পোর্টাল চালুর কথা জানানো হয়।পোর্টালে জেলায় জেলায় মাসিক বৈঠকের নির্যাস এবং যাবতীয় তথ্য আপডেট রাখার নির্দেশ দেন রাজ্য মুখ্য সচিব প্রশাসনিক আধিকারিকদের।শিল্প সম্মেলনের মাধ্যমে বিভিন্ন  ছোট ক্ষুদ্র মাঝারি শিল্প থেকে পর্যটন,শিক্ষা, স্বাস্থ্য, হর্টি কালচার, পোল্ট্রির ক্ষেত্রে শিল্পমুখী বিনিয়োগে ভালো সারা মিলছে। উন্নতিসাধনে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে টাটা মেমোরিটাল হাসপাতালের সঙ্গে পিপিপি মডেলে রাজ্য ক্যানসার হাসপাতাল তৈরি করছে। ক্যাথল্যাব করে কার্ডিক ইউনিট হবে। যদিও এই পরিকল্পনা বহু বছরের। তবে শিল্প সম্মেলনে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রেই উত্তরবঙ্গে ১১২০ কোটি টাকার বেসরকারি লগ্নি হবে বলেই জানানো হয়েছে। যাতে ৩৮৪৩ সংখ্যক কর্মসংস্থান হবে। এদিন বড় ঘোষণা করে মুখ্য সচিব জানান পহেলা এপ্রিল শিলিগুড়িতে ইএসআই হাসপাতাল চালু হবে। ইএসআই হাসপাতাল না থাকায় কর্মীদের সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে একাধিক শিল্পপতির মুখে সেই অভিযোগ উঠে আসে। এর প্রেক্ষিতে তিনি জানায় এই কাজ শেষ পর্যায়ে। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি আন্দোলনে আটকে যাওয়া হসপিটালটি ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটের কালিম্পঙ-এ জমি চিহ্নিত করেছে স্থানান্তরিত করছে রাজ্য সরকার। পর্যটন ক্ষেত্রে আগামী দুই বছরের মধ্যে ১৩০০ কোটির বিনিয়োগ ও চার হাজারের বেশি কর্মসংস্থান হবে উত্তরে বলেও এদিন জানানো হয়। যার মধ্যে ফাইভ স্টার হোটেলে বিনিয়োগ হতে চলেছে। জলপাইগুড়িতে দুটি কোচবিহারে একটি ও মালদায় একটি আলিপুদুয়ার, ফুলবাড়ি আমবাড়ি ফালাকাটা নিয়ে মোট সাত আইটি পার্ক তৈরি করতে চলেছে রাজ্য বিনিয়োগকারীদের নিয়ে পাওয়া পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তা তুলে ধরেন দপ্তরিয় সচিবেরা। পাহাড়ি ক্ষেত্র কালিম্পংয়ে অর্কিড পার্ক স্থাপনের চকর প্রদ প্রকল্প নিয়ে অবশ্য উৎসাহ দেখিয়েছে রাজ্য সরকার। কালিম্পং এর বিনিয়োগকারীর হাতেই আসামের কাজিরাঙ্গা অর্কিট পার্ক করে উঠেছে সে কথা শুনে শিল্প সম্মেলনের মঞ্চ থেকে রাজ্য মুখ্য সচিব বিনিয়োগকারীকে জানান জেলা শাসকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পাশাপাশি তিনি কালিম্পং জেলাশাসককে দ্রুত সরকারের তরফে ৩-৪ একর জমি চিহ্নিতকরণ প্রক্রিয়া শুরুর নির্দেশ দেন। অন্যদিকে শিল্প সম্মেলনে সকলের সম্মুখে মালদার শিল্পপতি উজ্জ্বল ঘোষ মালদার আমের সমৃদ্ধিতেই জমি মাফিয়াদের থাবার ভয়ংকর অভিযোগ তোলেন।

আম চাষের বাগান গুলিতে রাতারাতি বেআইনি দলিল তৈরি করে দখল নিয়েছে জমি মাফিয়ারা। বাগানের দখল নিয়ে আমগাছ কেটে ফেলা হচ্ছে। এখানেই শেষ নয় চাল ও ময়দার মিলকে কেন্দ্র করে সরকারের ভয়ংকর দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন শিল্পপতি। মার্কেটিং ট্যাক্স-এর নামে কোটি কোটি টাকার গড়মিলেরও অভিযোগ শিল্প সম্মেলনে সবার সম্মুখীন উঠে আসে। শিল্পপতির কথায় রাজ্য সরকারের দপ্তর থেকে মার্কেটিং ট্যাক্স এর নামে বিরাট অংকের গড়মিল চলছে। তিনি বলেন কোন শিল্প প্রতিষ্ঠান ২০১৪ সাল থেকে চালু হয়েছে অথচ তার মার্কেটিং ট্যাক্স দেখানো হচ্ছে ২০১০থেকে। এভাবে চলতে থাকলে শিল্পপতিরা বিনিয়োগে পিছিয়ে পড়বে।
একই সঙ্গে ফায়ার সেফটি নিয়েও মালদা থেকে কাগজ পেশ করতে শিলিগুড়ি দৌড় করাচ্ছে দপ্তর শিল্পপতিদের। যেখানে শিল্প সম্মেলনের মঞ্চে সচিবেরা বলছেন অনলাইনে সমস্তটা হয়ে যাবে সেখানে ফায়ার সেফটির হার্ড কপি জমা করতে শিলিগুড়িতে ছুটে আসতে হয় বিনিয়োগকারীদের। এই অভিযোগ পেয়েই জেলা শাসকের কাছে অবস্থা জানতে চান মুখ্য সচিব। তিনি বলেন দপ্তরের সচিব নেই। তবে ওইখানে কে দায়িত্বে রয়েছে তালে তলব করা হয়। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি না থাকায়
মঞ্চ থেকে ফায়ার সেফটি নর্থ বেঙ্গল জোনাল ম্যানেজারকে তলব করা হয়। দ্রুত সমাধানের নির্দেশ দেন অস্বস্তির মুখে মঞ্চে থাকা আধিকারিকেরা।

 

You cannot copy content of this page